লিনাক্সে বাংলা ইউনিজয় (বিজয়) কী-বোর্ড ব্যবহার-Using Unijoy (Bijoy) Keyboard in Linux

কম্পিউটারে বাংলার প্রচলন খুব বেশী দিন আগের নয়। প্রথম প্রথম কম্পিউটারে মাত্র সীমিত কয়েকটি কি-বোর্ড লে-আউট প্রচলিত ছিল। এর মধ্য থেকে বিজয় কি-বোর্ড জনপ্রিয়তার দিক থেকে বেশ এগিয়ে গেছে যদিও এটি-ই যে সর্বাধুনিক কি-বোর্ড লে-আউট সেটি বলা যাবে না। কারন বাজারে গীতাঞ্জলী, মুনির, লেখনী ইত্যাদি কি-বোর্ড আগে থেকেই প্রচলিত ছিল। হাল আমলে আমরা ফোনেটিক কি-বোর্ড যেগুলি ইউনিকোড নির্ভর সেগুলিকেই সত্যিকার অর্থে মডার্ন টাইপিং এর ক্ষেত্রে এক ধাপ অগ্রগতি হিসেবে চিহ্নিত করতে পারি। তাছাড়া লিনাক্স নির্ভর প্রভাত কি-বোর্ড ও যথেষ্ট আধুনিক এবং মানসম্মত।

উপরে বিভিন্ন কি-বোর্ড নিয়ে আলোচনা করার পরও আমরা যারা প্রথম থেকেই বিজয় কি-বোর্ডে অভ্যস্ত তারা নতুন একটি কি-বোর্ড শেখার কষ্ট করতে চাই না। তাই লিনাক্সে কাজ করার সময়ও বিজয় কি-বোর্ড এর অভাব অনুভূত হয়। কিন্তু লিনাক্সে বিভিন্ন ভাষার সাপোর্ট প্রদানের জন্য SCIM Input Method নামে এক বিশেষ পদ্ধতির সাহায্যে এ বিজয় কি-বোর্ড এর হুবহু না হলেও এর কিছুটা পরিবর্তিত রূপ ইউনিজয় আপনারা সহজেই পেতে পারেন। তবে এটি অন্যান্য ইউনিকোড কি-বোর্ড এর মতই ফোনেটিক পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকে অর্থাৎ অক্ষর আগে চাপার পর ো-কার, ে-কার চাপতে হবে। বিজয় যেহেতু মালিকানাধীন সফটওয়্যার তাই এটিকে কিছুটা পরিবর্তিত করেই ইউনিজয় নামে প্রচলন করা হয়েছে এই কি-বোর্ড ম্যাপিংকে। SCIM Input Method দিয়ে লিনাক্সে যেকোন ধরনের কি-বোর্ড ম্যাপিং করা সম্ভব অতিরিক্ত সফটওয়্যার ব্যবহার না করেই। তাই এটি বিজয়ের স্বত্বাধিকার নিয়ে কোন সমস্যা করে না কারন এটি সব ধরনের ভাষার জন্য ব্যবহৃত একটি টুলস।

আসুন এজন্য প্রথমেই প্রয়োজনীয় প্যাকেজ ইনস্টল করে নেই। একটি টার্মিনাল খুলে কমান্ড দেইঃ

aptitude install m17n-db
aptitude install scim-m17n

যদি scim এর ভার্সন নম্বর না জানা থাকে তাহলে প্রথমে সার্চ করে নিন নিচের কমান্ড দিয়ে-

aptitude serach scim


ফলাফল দেখে প্রথম কমান্ডে প্যাকেজ এর নাম সঠিকভাবে দিন এবং ইনস্টল করুন।

এখন থেকে আপনি ইউনিজয় কি-বোর্ড সাধারন এডিটর যেমন-gedit এ ব্যবহার করতে পারবেন। এজন্য উক্ত এ্যাপ্লিকেশনের ফাঁকা জায়গায় মাউস এর ডান বাটন ক্লিক করে কি-বোর্ড পরিবর্তন করে নিন।

আর অন্যান্য এ্যাপ্লিকেশনে ব্যবহার করার জন্য নিচের বর্নিত পদ্ধতিতে কাজ করুন তাহলে ctrl + spacebar চেপে বাংলা লিখতে পারবেন সব প্রোগ্রামে।

আগের মতই টার্মিনাল/শেল খুলুন এবং কমান্ড দিনঃ

gedit ব্যবহার করলে কমান্ডঃ
gedit /etc/X11/Xsession.d/90im-switch

অথবা

vi editor ব্যবহার করলে কমান্ড
vim /etc/X11/Xsession.d/90im-switch

খুব সাবধানতার সাথে কমান্ডটি দিবেন। যদি 90im-switch নামে কোন ফাইল থাকে তাহলে সেটি খুলবে নতুবা নতুন একটি ফাইল তৈরী হবে ঐ নামে।

export XMODIFIERS="@im=SCIM"
export XIM_PROGRAM="scim -d"
export GTK_IM_MODULE="scim"
export QT_IM_MODULE="scim"

যদি ফাইলে কোন কিছু লেখা থাকে সব মুছে দিন। vim এডিটর এ খুললে কয়েকবার dd চাপুন তাহলে এক লাইন করে মুছতে পারবেন অথবা একসাথে সব লাইন মুছতে চাপুন 100dd- যেখানে 100 হচ্ছে লাইন নম্বর। আর geditor এ খুললে মাউস দিয়ে সিলেক্ট করে মুছে দিন। এবার উপরের ৪টি লাইন কপি করে পেস্ট করুন এ ফাইলে অথবা নিজে টাইপ করে দিতে পারেন। যদি কপি করতে চান তাহলে কপি করে পেস্ট করার পর "(ডাবল ইনভার্টেড) কমাগুলিকে মুছে নিজে হাতে টাইপ করে দিন। অনেক সময় এগুলি বিভিন্ন এডিটরে বিভিন্ন রকম ক্যারেক্টার হিসেবে দেখায় তাই কপি পেস্ট করলে অন্য ক্যারেক্টারে রূপান্তরিত হয়ে যায়।

সবশেষে সেভ করুন সেভ বাটনে ক্লিক করে। vi এডিটর হলে কমান্ড দিন :wq।এবার মেশিন রিস্টার্ট করুন।

এখন যেকোন প্রোগ্রাম থেকেই ctrl + space bar চাপ দিয়ে বাংলা লেখা শুরু করতে পারবেন। লেখার শুরুতেই টাস্কবারে কি-বোর্ড এর মত একটি আইকন
দেখতে পাবেন যেখানে M17-bn-unijoy কথাটি লেখা আছে। এটিতে ক্লিক করেও কি-বোর্ড পরিবর্তন করতে পারবেন।

এখন যে-কোনো একটি এ্যপ্লিকেশন চালু করে Ctrl এবং Space Bar চাপ দিলে বাংলা লেখা যাবে।

যদি এরপরও সমস্যা হয় তবে System--> Administration --> Scim Input Method Setup এ ক্লিক করে বাংলা কি-বোর্ড (ইউনিজয়) এর জন্য ctrl + spacebar কে কনফিগার করে দিন। এখান থেকে আপনি প্রভাত বা অন্যান্য কি-বোর্ড ও সেট করতে পারবেন। আশা করি আর সমস্যায় পড়তে হবে না লিনাক্সে বাংলা লেখা নিয়ে।

1 comments:

Post a Comment