প্রিয় কিছু এন্ড্রয়েড সফটওয়্যার- পর্ব- ১

ওয়াল্টনের প্রিমো জি-২ মোবাইল কেনার পর থেকে বেশ কিছু এন্ড্রয়েড সফটওয়্যার ব্যবহার করছি যেগুলি সত্যিই চমৎকার। এগুলির মধ্যে কয়েকটির বিবরন নিম্নে দিচ্ছি-

১. CamScanner -  মোবাইল ফোনের ক্যামেরা দিয়ে স্ক্যান করে ডকুমেন্ট পিডিএফ করার জন্য অসাধারন একটি সফটওয়্যার।
২. CamCard - ভিজিটিং কার্ড মানিব্যাগে রাখতে রাখতে সাইজ বেঢপ হয়ে গেছে। চিন্তার কিছু নেই। এ সফটওয়্যার দিয়ে ভিজিটিং কার্ডগুলিকে স্ক্যান করে সংরক্ষন করুন আর হার্ডকপিগুলিকে ফেলে দিন। এ সফটওয়্যারটি স্ক্যান এর সাথে সাথে কার্ড থেকে কনট্যাক্ট ডিটেলসও সংরক্ষন করতে পারে।
৩. AirDroid - এটি দিয়ে আপনার মোবাইলটিকে ইন্টারনেট ছাড়াই ওয়াইফাই এর সাহায্যে ডেস্কটপ/ল্যাপটপ দিয়ে একসেস করতে পারবেন। এটির সাহায্যে ফাইল, মেসেজ, ছবি, সফটওয়্যার ইত্যাদি ডেস্কটপ/ল্যাপটপ থেকে মোবাইলে ট্রান্সফার করতে পারবেন।
৪. 920 Text Editor - অসাধারন একটি টেক্সট এডিটর। মোবাইলে যে কোন সোর্স কোড এডিট করতে পারবেন। এটি সিনট্যাক্স হাইলাইট করে থাকে অনেকগুলি ল্যাংগুয়েজের।
৫. AndroPHP - নাম শুনেই আন্দাজ করতে পারছেন হয়তো। এটি মোবাইলকে LAMP সার্ভারে পরিনত করবে। যেকোন ওয়েব এ্যাপ মোবাইলে চালাতে পারবেন। ইচ্ছা করলে ওয়াইফাই এর সাহায্যে আপনার নেটওয়ার্ক এর আওতায় থাকা যেকোন ল্যাপটপ/ডেস্কটপ উক্ত ওয়েব এ্যাপ ব্যবহার করতে পারবে নেট কানেকশন ছাড়াই।
৬. Clean Master- বেশ কাজের একটি Memory Booster সফট। ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকা এ্যাপগুলিকে মেমোরী থেকে বের করে মেশিনের স্পিড বাড়িয়ে দেয় এবং ব্যাটারীর চার্জ ও সংরক্ষন করে কার্যকরভাবে।
৭. Clean Music - নোকিয়া ফোনের মত ফোল্ডারের ভিত্তিতে গান শোনার সফটওয়্যার। যে ফোল্ডারে ব্রাউজ করবেন প্লে-লিস্টে সেই ফোল্ডারের গানগুলিকে শোনাতে থাকবে।
৮. ES File Explorer - চমৎকার একটি ফাইল ব্রাউজার সফট। লোকাল ফাইল ব্রাউজ করার সাথে সাথে অনলাইন স্টোরেজে রাখা ফাইল সার্ভার যেমন- ড্রপবক্স, স্কাইড্রাইভ, গুগল ড্রাইভের ফোল্ডারগুলি একসেস করতে পারে এবং সরাসরি মোবাইল থেকে এসব অনলাইন স্টোরেজ থেকে ফাইল কপি, পেস্ট করা যায়। বিপরীতভাবে উক্ত অনলাইন স্টোরেজ সমূহ থেকে ফাইল ডাউনলোড ও করা যায় আপনার মোবাইলে।
৯. Memor Bar Simple - স্ক্রিনের উপরে নোটিফিকেশন এরিয়াতে কতটুকু Ram ফাকা আছে তা প্রদর্শন করে থাকে। বেশ কাজের জিনিস।
১০. Battery Bar Simple - স্ক্রিনের উপরে নোটিফিকেশন এরিয়াতে কতুটুক ব্যাটারী চার্জ আছে তা % আকারে প্রদর্শন করে থাকে।
১১. Call Block - নাম শুনেই বুঝতে পারছেন এর কাজ কি। অনাকাংখিত কল এড়ানোর জন্য মোবাইল কোম্পানিকে আর টাকা দিতে হবে না।
১২. Flashlight - মোবাইলকে টর্চ লাইট হিসেবে ব্যবহারে এর জুড়ি নেই। ফ্ল্যাশ লাইট না থাকলেও সামনের বড় স্ক্রিনকে আলোর উৎসে পরিনত করতে পারে।
১৩. Keep - টুকটাক নোট সংরক্ষনের সফটওয়্যার। এটি গুগল ড্রাইভের সাথে সিন্ক্রোনাইজ করে ব্যবহার করা যায়। বেশ ছোট ও স্মার্ট সফট।
১৪. Auto Resize Wallpaper - মোবাইলের যেকোন ছবি কে ওয়ালপেপার হিসেবে সেট জন্য চমৎকার সফট।





0 comments:

Post a Comment